বুধবার , ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩ | ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আরো
  7. এক্সক্লুসিভ নিউজ
  8. কলাম
  9. কৃষি
  10. খুলনা বিভাগ
  11. খেলাধুলা
  12. গণমাধ্যম
  13. চট্টগ্রাম বিভাগ
  14. জাতীয়
  15. ঢাকা বিভাগ

মুন্সীগঞ্জ ৩ আসনের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে স্বাধীনতার প্রতীক নৌকা মার্কায় মৃণাল কান্তি দাসকে ভোট দিন

প্রতিবেদক
সভ্যতার আলো ডেস্ক
ডিসেম্বর ২৭, ২০২৩ ১:৩৭ অপরাহ্ণ

স্টাফ রিপোর্টারঃ

মুন্সীগঞ্জ সদর ও গজারিয়া উপজেলার দুইটি পৌরসভা ও ১৭টি ইউনিয়নের ৪ লাখ ৮২ হাজার ২৯৪ জন ভোটার নিয়ে গঠিত মুন্সীগঞ্জ ৩ আসন। এই আসনে টানা দুইবারের সংসদ সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস।

তার আমলে উল্লেখযোগ্য বেশ কিছু উন্নয়ন হয়েছে এই তার নির্বাচনী এলাকায়। সেগুলো হলো- ২ হাজার দুইশো ৫০ কোটি টাকা ব্যায়ে পঞ্চবটি থেকে মুক্তারপুর পর্যন্ত দ্বিতল সড়ক নির্মাণ ও সড়ক প্রশস্তকরণ প্রকল্প গ্রহণ, মুন্সীগঞ্জ জেলা সদরে প্রায় ১৯ কোটি টাকা ব্যায়ে ডায়াবেটিক হাসপাতাল নির্মাণ, মুন্সীগঞ্জ জেলা সদরে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) নির্মাণ, সদর ও গজারিয়াতে প্রায় ১৮ কোটি টাকা ব্যায়ে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ, ৫ কোটি টাকা ব্যায়ে সদরের পেট্টোল পাম্প এলাকা থেকে মানিকপুর পর্যন্ত সড়ক আরসিসি করণ, সদরে ১৩ কোটি টাকা ব্যায়ে ইনডোর স্টেডিয়াম নির্মাণ, শহীদ ব্রীরশ্রেষ্ঠ ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মতিউর রহমান স্টেডিয়াম আধুনিকীকরণ, পোষ্ট অফিসের নতুন ভবন নির্মাণ, চরাঞ্চলের সড়ক প্রশস্তকরণ-স্টিলের সেতুর বদলে কংক্রিটের সেতু নির্মাণ, সদরের বসারচর সেতু নির্মাণ, মুন্সীগঞ্জ মহিলা কলেজের ভবন নির্মাণ, প্রায় ৬০ কোটি টাকা ব্যায়ে হরগঙ্গা কলেজে নতুন ভবন, ছাত্রাবাসসহ বিভিন্ন ভবন নির্মাণ, জেলা সদরে ফায়ার সার্ভিস নির্মাণ,

মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালকে ২৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ, মুন্সীগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের নতুন ভবন নির্মাণ, মুন্সীগঞ্জ গজারিয়া ফেরি সার্ভিস চালুকরণ, মুন্সীগঞ্জ জেলা আদালত ভবন নির্মাণ, গজারিয়া ও মুন্সীগঞ্জে টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ নির্মাণ, জেলা খাদ্য ভবন নির্মাণ, ৮০ কোটি টাকা ব্যায়ে ১৭ কিলোমিটার গজারিয়া-মুন্সীগঞ্জ সড়ক নির্মাণ, গজারিয়া ফায়ার সার্ভিস স্টেশন নির্মাণ এবং সদরে ৫২টি প্রাইমারি স্কুলের ভবন নির্মাণ। এছাড়াও দুই উপজেলায় মসজিদ, মাদরাসা, কবরস্থান, মন্দির, শ্মশান নির্মাণ ও সংস্কারের জন্য কোটি কোটি টাকা অনুদান দিয়েছেন, এলাকায় গ্রামে ও মহল্লায় সাবমারসিবল নলকূপ স্থাপন করেছেন।

তিনি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে দেওয়া তার হলফনামায় ১১ দফা নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি উল্লেখ্য করেছেন। প্রতিশ্রুতি সমূহ হচ্ছে- মেঘনা ও ফুলদি নদীর উপর ব্রীজ নির্মাণ, সরকারি হরগঙ্গা কলেজ থেকে বাংলা বাজার পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণ ও ব্রীজ নির্মাণ, চরডুমুরিয়া থেকে চর আব্দুল্লাহ পর্যন্ত সড়ক নির্মাণ, কাটাখালি থেকে মাকহাটি পর্যন্ত রাস্তা প্রশস্ত করন ও ব্রীজ নির্মাণ, পদ্মা নদীর ভাঙনের হাত থেকে শিলই, বাংলাবাজার, আধারা রক্ষার জন্য স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ, মেঘনা নদীর ভাঙন থেকে আশ্রাব্দী ইসমানির চর, দৌলতপুর, গুয়াগাছিয়া রক্ষার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা, গজারিয়া থেকে মুন্সীগঞ্জ গ্রামীণ জনপদের সড়ক সমূহ প্রশস্ত করা, মুন্সীগঞ্জ শহরে শিল্পকলা একাডেমি আধুনিকায়ন ও গনসদন প্রতিষ্ঠা, শিক্ষা বিস্তারের লক্ষে স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসায় নতুন ভবন নির্মাণ, মসজিদ, মন্দির, মাদ্রাসা, কবরস্থান সংরক্ষন এবং তথ্য প্রযুক্তি শিক্ষা বিস্তারের জন্য নতুন নতুন প্রকল্প গ্রহণ করা।

সর্বশেষ - মুন্সীগঞ্জ

আপনার জন্য নির্বাচিত